বান্দরবানে ৬ খুনের ঘটনায় জেএসএস কর্মী গ্রেফতার

বান্দরবানে ৬ খুনের ঘটনায় জেএসএস কর্মী গ্রেফতার

বান্দরবানে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা) গ্রুপের ছয় নেতা-কর্মীকে হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে সুশান্ত চাকমা (৪০) নামে পার্বত্য চট্টগ্রাম জন সংহতি সমিতির (জেএসএস) মূল গ্রুপের এক কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সুশান্ত বান্দরবানের রাজবিলা ১ নম্বর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের যোগেশ কারবারি পাড়ার পুতুল চন্দ্র চাকমার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা য়ায় , ৭ জুলাই সকালে বান্দরবান সদর উপজেলার রাজবিলা ইউনিয়নের বাঘমারা এলাকায় এমএন লারমা গ্রুপের ছয় নেতা-কর্মী হত্যার ঘটনায় সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক উবামং মার্মা বাদী হয়ে বান্দরবান সদর থানায় জেএসএস সন্তু লারমা গ্রুপের ১০ জনের নামে এবং অজ্ঞাত আরও ১০ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত থাকার অপরাধে সুশান্ত চাকমাকে গ্রেফতার করে।

বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, গ্রেফতার আসামি সুশান্তকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িত অন্য আসামিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বান্দরবানের বাঘমারা এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত ছয়জন হলেন- এমএন লারমা গ্রুপের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি বিমল কান্তি চাকমা (৬৮), উপদেষ্টা কমিটির সদস্য চিংথোয়াইয়াং মারমা ওরফে ডেভিড (৫৬), বান্দরবান জেলা সভাপতি রতন তঞ্চঙ্গা (৫০), পার্বত্য চট্টগ্রাম যুব সমিতির সদস্য রবীন্দ্র চাকমা (৫০), রিপন ত্রিপুরা ওরফে জয় (৩৫) ও জ্ঞান ত্রিপুরা ওরফে দিপন (৩২)। রতন তঞ্চঙ্গা ছাড়া বাকি সবার বাড়ি খাগড়াছড়ির বিভিন্ন উপজেলায়।

এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহতরা হলেন- নিরু চাকমা (৫০), বিদুৎ ত্রিপুরা (৩৮) ও শিক্ষার্থী মেমানু মারমা (২৬)।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *